জনকন্ঠের সামনে আন্দোলনরত সাংবাদিকদের উপর হামলা


জনকন্ঠের সামনে আন্দোলনরত সাংবাদিকদের উপর হামলা

জনকন্ঠের সামনে আন্দোলনরত সাংবাদিকদের উপর হামলায় কমপক্ষে ১০ জন আহত। ১১ এপ্রিল দুপুরে দৈনিক জনকণ্ঠ থেকে ছাঁটাইয়ের প্রতিবাদে প্রধান ফটকে তালা দিয়েছে প্রতিষ্ঠানটির চাকরি হারানো কর্মীরা। এসময় নিউ ইস্কাটনে জনকণ্ঠ অফিসের সামনের সড়কে যান চলাচল বন্ধ করে অবস্থান নেয় বিক্ষোভকারীরা। আন্দোলনে সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতারা সংহতি জানিয়ে অংশগ্রহণ করেন।

বেলা ১২টা থেকে শুরু হওয়া কর্মসূচিতে সংহতি জানিয়ে অবস্থান নিয়েছেন ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সভাপতি আবু জাফর সূর্য, ঢাকা সাংবাদিক ইউনিয়নের যুগ্ম সম্পাদক মনিরুল আলমসহ বাংলাদেশ ফেডারেল সাংবাদিক ইউনিয়ন, ঢাকা রিপোর্টার্স ইউনিটিসহ সাংবাদিকদের বিভিন্ন সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

কর্মীদের অভিযোগ, গত সাত বছর ধরে প্রতিষ্ঠানটিতে পদোন্নতি , বেতনবৃদ্ধি, ওয়েজ বোর্ডের অসংগতি ছিল। পাওনা পরিশোধের জন্য কর্তৃপক্ষকে কয়েক দফা চিঠি দেয়া হলেও, কর্তৃপক্ষ সাড়া দেয়নি। এর মাঝেই গত ১৬ মার্চ অন্তত ৬০ শতাংশ কর্মীকে ছাঁটাই করে তাদের মেইলে চিঠি পাঠায় জনকণ্ঠ কর্তৃপক্ষ। এর প্রতিবাদে তখন থেকেই আন্দোলন করে আসছেন তারা। তবে কর্মী ছাঁটাইয়ের কয়েকদিন পরই মারা যান দৈনিক জনকণ্ঠের সম্পাদক ও প্রকাশক মোহাম্মদ আতিকউল্লাহ খান মাসুদ।